Top banner
Language : Bengali | English
Quick Links
 

জাতীয় বৃক্ষরোপণ ও বৃক্ষমেলা ২০১১
তারিখ :


index photo

index photo


President
People's Republic of Bangladesh

০১ জুন থেকে তিন মাসব্যাপী ‘জাতীয় বৃক্ষরোপণ ও বৃক্ষমেলা ২০১১’ শুরু হচ্ছে জেনে আমি আনন্দিত। আমি এ উদ্যোগকে স্বাগত জানাই।

বৃক্ষ জীবন ও পরিবেশের গুরুত্বপ–র্ণ উপাদান, অকৃত্রিম বন্ধু। জীবের দৈনন্দিন খাদ্য, আশ্রয়সহ নানাবিধ চাহিদা প–রণের পাশাপাশি প্রাকৃতিক ভারসাম্য বজায় রেখে ধরিত্রীকে বাসযোগ্য রাখতে বৃক্ষের অবদান অপরিসীম। ‘বৈশ্বিক উষ্ণতা” জলবায়ু পরিবর্তনের এক গুরুত্বপ–র্ণ নিমায়ক বলে বিবেচিত। বৃক্ষ বায়ুমন্ডলের কার্বন-ডাই-অক্সাইড শোষণের মাধ্যমে উষ্ণতা হ্রাস করে এবং জলবায়ু পরিবর্তনের বিরূপ প্রভাব কমাতে সহায়তা করে। এ প্রেক্ষাপটে এবারের জাতীয় বৃক্ষরোপণ অভিযান ও বৃক্ষমেলার প্রতিপাদ্য ”দেশের বায়ু দেশের মাটি, গাছ লাগিয়ে করবো খাঁটি’ যথার্থ হয়েছে বলে আমি মনে করি।

বৃক্ষ কেবল পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষা নয়; কর্মসংস্থান, দারিদ্র্য বিমোচন, খাদ্য নিরাপত্তা, বাসস্থান, চিকিৎসা, জ্বালানী তথা জীবন ও জীবিকা নির্বাহে গুরুত্বপ–র্ণ ভূমিকা রাখছে। সমৃদ্ধশালী বাংলাদেশ গড়তে, দেশকে সবুজে সবুজে ভরে তুলতে এবং জলবায়ু পরিবর্তন রোধে ব্যাপকভাবে গাছ লাগানোর জন্য আমি দেশবাসীর প্রতি উদাত্ত আহ্বান জানাই।

যাঁরা বন্যপ্রাণী সংরক্ষণে বঙ্গবন্ধু জাতীয় পুরস্কার ২০১০ ও বৃক্ষরোপণে প্রধানমন্ত্রীর জাতীয় পুরস্কার ২০১০ এ ভূষিত হয়েছেন এবং সামাজিক বনায়ন কার্যক্রমে অংশ নিয়ে লভ্যাংশ পাচ্ছেন তাঁদের সকলকে আমি অভিনন্দন জানাই।

আমি জাতীয় বৃক্ষরোপণ অভিযান ও বৃক্ষমেলা ২০১১ এর সাফল্য কামনা করি।

খোদা হাফেজ, বাংলাদেশ চিরজীবী হোক।

মোঃ জিল্লুর রহমান

Home | Contact us | Sitemap
© Copyright 2009, Bangabhaban - Bangladesh, all rights reserved.
Financed by Support to ICT Task Force (SICT) , Planing Division. Developed by : Ethics Advanced Technology Ltd. (EATL)